সম্পূর্ণ একটি ভুল মানুষকে বিয়ে করার ফল, কিভাবে ভুগতে হল বান্টি কে? দেখুন….

বাবলু প্রামাণিক দক্ষিণ ২৪ পরগনা :- তবে কি এটিই স্বামী-স্ত্রীর সম্পর্কের জলজ্যান্ত উদাহরণ?যেখানে আজ, সামান্য ভুল স্বামী নির্বাচনের ফলে, একি হাল করে ছাড়লো গৃহবধূ বানটির?কিন্তু, দিদির এমন পরিণতিতে, ভাইয়ের এ কেমন ভালোবাসার প্রতিদান…?দেখুন, একটিবার, চোখে জল ধরতে না পারা সেই মর্মান্তিক ঘটনা…..ঘটনাটি ঘটেছে ক্যানিং থানার অন্তর্গত তালদি পঞ্চায়েতের পূর্ব খাসকুমড়ো খালি মধ্যপাড়া গ্রামে।ক্যানিং থানার পুলিশ বধুকে উদ্ধার করে ময়না তদন্তে পাঠিয়ে ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে।

তবে, স্থানীয় সুত্রে জানা গিয়েছে গত প্রায় ১১ বছর আগে ক্যানিংয়ের তালদি পঞ্চায়েতের ট্যাংরাখালির কাঁকড়াদহের দাসপাড়ার কানাই দাসের মেয়ে বান্টী’র সাথে বিয়ে হয় তালদি পঞ্চায়েতের পূর্ব খাসকুমড়োখালির মধ্যপাড়ার নারদ মন্ডলের।

দম্পতির ৯ বছরের এক পুত্রসন্তান রয়েছে।অভিযোগ বিয়ের পর থেকেই প্রতিনিয়ত নানান অজুহাতে ওই বধুর ওপর দিনের পর দিন ধরে দুরবালের ওপর সবলের অধিকার প্রয়োগ করতো স্বামী নারদ। এমনকি বেধড়ক মারধর করা হতো বলে অভিযোগ।

বিগত দিনে মেয়ে ওপর জামাইয়ের মাত্রাছাড়া এই কাণ্ডে অতিষ্ট হয়ে জামাইয়ের বিরুদ্ধে ক্যানিং থানায় অভিযোগ দায়ের করেছিলেন বধুর মা বিপাশা দাস।কিন্তু এদিন সকালে জামাই খবর দেয় বান্টী অসুস্থ। হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে।আমরা হাসপাতালে এসে দেখি,আমার মেয়ের এমন পরিণতি ……..