ব্যাংকের নাম করে ফোন আসতেই, একদিনে সে কিভাবে নদীয়ার এই ঘরের বউ হলো সর্বশান্ত? দেখুন……

মলয় নদীয়া :- সাবধান! আজ এই গৃহবধূ, কাল আপনার সাথেও ঘটে যেতে পারে এমন ঘটনা……এক নিমিষেই আপনি হতে পারেন সর্বহারা……কিন্তু, ব্যাংকে না গিয়েও ঘরের মধ্যেই কিভাবে ঘটলো এমন আশ্চর্যজনক ঘটনা? দেখুন বিস্তারিত…..ঘটনাটি রায়দিঘী থানার কাশিনগরের বাহির কাঞ্চলী গ্রামে, জানা যায় বন্ধন ব্যাংকের ম্যানেজারের নাম দিয়ে, ২৫ হাজার টাকা তুলে নেওয়ার অভিযোগ,

গৃহবধূ পলি ভান্ডারীর একাউন্ট থেকে তুলে নেওয়া হয় ওই টাকা,এই ঘটনায় সোমবার দিন রায়দিঘী থানায় অভিযোগ দায়ের করে পলি ভান্ডারী, ওই গৃহবধূ জানিয়েছেন গত শনিবার পলি ভান্ডারীর মোবাইলে বন্ধন ব্যাংকের লোগো লাগানো ফোন আসে,বলা হয় আপনার ব্যাংকের একাউন্ট বন্ধ হয়ে গিয়েছে,KYC জমা দিতে হবে এবং বলে যে আমি বন্ধন ব্যাংকের ম্যানেজার বলছি, অন্যদিকে,পলি ভান্ডারী ফিস ডিপোজিট করা আছে, ফিস ডিপোজিট নমিনি ওই গৃহবধূর মা,

সেই প্রতারক ও গৃহবধূর মায়ের নাম বলে, এবং যে এজেন্টের কাছে ওই গৃহবধূ ফিস ডিপোজিট করেছে সেই এজেন্টের নাম ও বলে ওই প্রতারক, ফোন করে কথা বলতে বলতে বলে যে তোমার বই চালু হয়ে গিয়েছে,OTP গিয়েছে OTP দিতে হবে, অন্যদিকে অভিযোগ কারেনি পলি ভান্ডারী চোখের সমস্যা থাকার কারণে OTP দিয়ে দেয়, সঙ্গে সঙ্গে ২৫ হাজার টাকা কেটে নেয় পল্লী ভান্ডারীর একাউন্ট থেকে, এই ঘটনায় সোমবার দিন রায়দিঘী থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করে পলি ভান্ডারী, ইতিমধ্যে রায়দিঘী থানার পুলিশ তদন্ত শুরু করেছে।