বিয়ে করা সত্ত্বেও, সেই বিয়ে কে গোপন করে আবারো এ কিসের ছুকচুকানি গৃহবধুর? দেখুন, সেই আজব কান্ড….

সানি রয় ধুপগুড়ি :- স্বামী আছে এমনকি কন্যা সন্তানও রয়েছে, কিন্তু তা থেকে লাভ কি…..কথায় আছে না, স্বভাব আর অভাব কোনদিনই মেটে না, কিন্তু এক্ষেত্রে গৃহবধুর সাথে স্বভাব কথাটাই প্রযোজ্য কারণ, সেবার নিজের হাটেই হাড়ি ভেঙে দিল, অন্য সম্পর্কে জড়াতে গিয়েই…..কিন্তু শেষ পর্যন্ত কি ঘটলো দেখুন একটিবার….হ্যা, যতকাণ্ড ধূপগুড়িতেই, এবার ধুপগুড়ি ১৫ নম্বর ওয়ার্ডের জনৈক গৃহবধূ, তার স্বামী ও কন্যার পরিচয় গোপন রেখে সামাজিক মাধ্যমে পরিচয়ের মাধ্যমে বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্ক গড়ে তোলে জামালদহের এক যুবকের সঙ্গে।

প্রায় এক মাস আগে সামাজিক মাধ্যমে বিয়েও সম্পন্ন হয় জামালদহের সেই যুবকের বাড়িতে এমনটাই জানাচ্ছেন জামালদহের সেই যুবকের দাদা অতুল বর্মন।তবে, আশ্চর্যজনকভাবে বিয়ের সময় পর্যন্তও মহিলার প্রথম বিয়ের কথা ভ্রূনাক্ষরেও টের পাননি দ্বিতীয় পক্ষের স্বামী জামালদহের যুবক। অপরদিকে নববিবাহিত সেই মহিলা ধুপগুড়িতে থাকাকালিন স্বনির্ভর গোষ্ঠীর মাধ্যমে মোটা টাকা লোন নিয়েছিলেন বলে বিয়ের পর জানতে পারেন সেই যুবক।

কিন্তু, পরবর্তিতে সবকিছু জলের মতন পরিষ্কার হয়ে যাওয়ার পরই, ছেড়ে দে মা কেঁদে বাঁচি এই গৃহবধু, এমন বিপাকে পড়েই ঘটিয়ে বসেন এক কান্ড।পরে তাকে দ্রুত জামালদহ প্রাথমিক স্বাস্থ্যকেন্দ্রে নিয়ে যাওয়া হয়। এমনটাই জানাচ্ছেন যুবকের দাদা অতুল বর্মন। বর্তমানে সেই গৃহবধূকে উন্নত চিকিৎসার জন্য জলপাইগুড়ি রেফার করে দেওয়া হয়েছে।