ছেলেকে শিক্ষকের চাকরি পাইয়ে দেওয়ার স্বপ্নে, কিভাবে হারাতে হলো বাবাকে? দেখুন, বয়স না হতেও টাকা দিয়ে চাকরি কেনার সেই কান্ড…..

কাজী আমীরুল ইসলাম :- একেতেই এখন রাজ্য রাজনীতি সরগরম, টেট দুর্নীতি নিয়ে, আর্ ঠিক তার মাঝেই আমাদের ক্যামেরাতে উঠে এলো এই চাঞ্চল্যকর ঘটনা….ছেলের বয়স হয়নি, কিন্তু তা সত্ত্বেও প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগের পরীক্ষায় উত্তীর্ণ, তবে ইন্টারভিউ তে গিয়ে আটকা পড়তেই দেখুন শেষমেষ কি ঘটল……চাকরি পাইয়ে দেওয়ার নাম করে টাকা নেওয়ার অভিযোগ উঠল লাভপুরে, অভিযুক্ত দুই ব্যক্তির মধ্যে একজন খোদ লাভপুরের প্রাক্তন বিধায়ক মনিরুল ইসলাম,অন্যজন প্রাক্তন প্রধান সুভাষ ব্যানার্জি।

এফ আই আর দায়ের হয়েছে লাভপুর থানায়, অভিযোগ দায়ের করেছেন লাভপুরেরই বাসিন্দা সৌরদীপ সরকার নামে এক যুবক। এমনকি তার পরেই অন্যতম অভিযুক্ত লাভপুরের বাবু পাড়ার বাসিন্দা সুভাষ ব্যানার্জিকে গ্রেফতার করা হয়েছে বলেও জানা গেছে।

তবে এই ঘটনা প্রকাশ্যে আসতেই প্রকাশ পেয়েছে চাঞ্চল্যকর আরও একটি তথ্য। ২০১২ সালে প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগের পরীক্ষায় সৌরদীপ সরকার লিখিত পরীক্ষা দিলেও উপযুক্ত বয়স না হওয়ার জন্য বাদ পড়েন ইন্টারভিউ দিতে গিয়ে,একথা জানিয়েছেন তিনি নিজেই।আর এখানেও উঠছে প্রশ্ন তাহলে তিনি লিখিত পরীক্ষা দিলেন কিভাবে?তবে সৌরদীপ সরকার অভিযোগ জানিয়েছেন অভিযুক্ত সুভাষ ব্যানার্জি তার পিতৃ বন্ধু আর সেই সুযোগে তার বাবার কাছে চাকরি করিয়ে দেওয়ার নাম করে প্রথম দফায় আড়াই লক্ষ ও পরে প্রাক্তন বিধায়ককে সঙ্গে নিয়ে গিয়ে আরও পাঁচ লক্ষ টাকা নেয়।

কিন্তু ইন্টারভিউ-এ বাদ পড়ার পর সেই টাকা আর ফেরত পাওয়া যায়নি এমনকি ওই আঘাত সহ্য করতে না পেরে প্রয়াত হন সৌরদীপ সরকারের বাবা অরুণ সরকার….কিন্তু এই ঘটনায় প্রকৃত দোষী কে? জানান আপনাদের মূল্যবান মতামত….